মঙ্গলবার,

১৮ মে ২০২১

নেইমারের কাছে পাওনা টাকা চেয়ে মামলা করবে বার্সা

অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ১০:৫০, ১২ নভেম্বর ২০২০

আপডেট: ০৬:১২, ১৩ জানুয়ারি ২০২১

নেইমারের কাছে পাওনা টাকা চেয়ে মামলা করবে বার্সা

পিএসজি তারকা নেইমার

নেইমারের সঙ্গে বার্সেলোনার সম্পর্ক বড় অদ্ভুত! গত মৌসুমেও ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ডকে পাওয়ার জন্য উঠেপড়ে লেগেছিল ক্লাবটি। এবার নেইমারের সঙ্গে আইনি লড়াইয়ে নামার প্রস্তুতি নিচ্ছে বার্সেলোনা। এবারের কারণটা রীতিমত বিস্ময়কর। কারণ কাতালান ক্লাবটির দাবি, হিসাবের ভুলে ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ডকে বেশি বেতন দেওয়া হয়েছিল! হিসাবের ভুলে নেইমারকে নাকি প্রায় ১০ মিলিয়ন ইউরো বেশি বেতন দিয়েছে বার্সা।

২০১৫ সালের আর্থিক নথি পর্যালোচনা করে এই তথ্য পাওয়া গেছে, যা এখন নেইমারের কাছে ফেরত চাওয়া হবে। স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম 'এল মুন্দো'-এর এক রিপোর্ট অনুযায়ী, স্পেনের একটি ট্যাক্স এজেন্সি এই তথ্য খুঁজে বের করেছে।

নেইমার ক্যাম্প ন্যূ-তে থাকতে তাঁকে পাওনার চেয়েও বেশি টাকা দেওয়া হয়েছে বলে মনে করছে বার্সা। এই অতিরিক্ত টাকা দেওয়ার পরিমাণ ১ কোটি ২০ লাখ ডলার (বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ১০১ কোটি টাকা), যা চেয়ে আদালতে মামলা করবে ক্লাবটি। সংবাদ সংস্থা এএফপি। 

এল মুন্ডোর প্রতিবেদনে আরও বলা হয় স্পেনের কর কর্তৃপক্ষ হিসেব করে বের করেছে, ‘অন্যায্যভাবে সমৃদ্ধকরণ’ এর কারণে লাভবান হয়েছেন নেইমার। এএফপিকে বার্সার এক সূত্র জানিয়েছে, ক্লাব এখন নেইমারের কাছে পাওনা টাকাটা চাইবে।

স্প্যানিশ ট্রেজারির কর ফাঁকি দাতাদের তালিকায় সবচেয়ে উপরে আছে নেইমারের নাম। গত সেপ্টেম্বরে প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী ব্রাজিলিয়ান তারকার থেকে ৩৪.৬ মিলিয়ন ইউরো পায় স্প্যানিশ ট্রেজারি।

স্পেনের রাজস্ব কর্তৃপক্ষ নেইমারের দুটি দলবদল নিয়ে তদন্ত করছে বলে জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম। সান্তোস থেকে তাঁর বার্সায় আগমন এবং বার্সা থেকে পিএসজিতে যাওয়া—এ দুটি দলবদল নিয়ে তদন্ত করছে তারা।

এদিকে আরেক স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম 'মার্কা' জানিয়েছে, এরইমধ্যে 'বাড়তি বেতন'-এর অর্থ ফেরত পেতে মামলা করেছে বার্সা। যদিও ট্যাক্স এজেন্সিটি জানিয়ে দিয়েছে, যদি পরিস্থিতি সামাল না দেওয়া যায় তাহলে ওই বাড়তি বেতন অর্থাৎ ১০ মিলিয়ন ইউরো ক্লাবের পক্ষ থেকে নেইমারকে 'দান' করা হয়েছে বলে ধরা হবে।

বার্সা আরও জানিয়েছে, ‘আদালতের রায়ে খেলোয়াড় নেইমারের ৪৩.৬ মিলিয়নের দাবি পুরোপুরি ডিসমিস করে দিয়েছে। একই সঙ্গে এফসি বার্সেলোনা নিজেদের পক্ষে যে বক্তব্য দিয়েছে, আদালাত তার প্রায় পুরোটাই গ্রহণ করে নিয়েছে। যে কারণে নেইমারকে অবশ্যই এখন ৬.৭ মিলিয়ন ইউরো ফিরিয়ে দিতে হবে ক্লাবের একাউন্টে।’

বিষয়টি আদালতে ওঠার পর গত জুনে নিজেদের পক্ষে রায় পায় বার্সা। উল্টো বার্সাকে ৬.৭৯ মিলিয়ন ইউরো পরিশোধের জন্য নেইমারকে নির্দেশ দেন আদালত। তবে নেইমারের সঙ্গে আর্থিক বিষয় নিয়ে বিরোধ থাকলেও তাঁকে ক্যাম্প ন্যু তে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করেছে বার্সা।

আপাতত বার্সার এমন চেষ্টা সফল হবে না বলেই মনে করা হচ্ছে। করোনাভাইরাস মহামারির কারণে আর্থিকভাবে ভীষণ বাজে অবস্থায় রয়েছে বার্সা।

বার্সেলোনা প্রতিক্রিয়া জানালেও নেইমারের প্রতিনিধি ব্যাপারটি নিয়ে কিছুই বলেননি। 

সম্পর্কিত বিষয়: