মঙ্গলবার,

১৬ এপ্রিল ২০২৪,

৩ বৈশাখ ১৪৩১

মঙ্গলবার,

১৬ এপ্রিল ২০২৪,

৩ বৈশাখ ১৪৩১

Radio Today News

অধিনায়কত্ব ইস্যুতে সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলল পিসিবি

রেডিওটুডে ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৬:০৯, ২৯ মার্চ ২০২৪

Google News
অধিনায়কত্ব ইস্যুতে সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলল পিসিবি

গুঞ্জনটা বেশ কিছুদিন ধরেই চলছিল। অবশেষে সেটিতে সিলমোহর পড়ল বলে! ভারতের মাটিতে ওয়ানডে বিশ্বকাপে ব্যর্থতার পর পাকিস্তানের তিন ফরম্যাটের ক্রিকেটের নেতৃত্ব থেকে সরে দাঁড়িয়েছিলেন বাবর আজম। আরেকটি বিশ্বকাপ সামনে রেখে আবারও নেতৃত্বে ফেরানো হচ্ছে তারকা এই ব্যাটারকে। অন্যদিকে, এক সিরিজ শেষেই অধিনায়কত্বের অধ্যায় আপাতত শেষ হচ্ছে শাহিন শাহ আফ্রিদির।

জানা গেছে, নতুন নির্বাচক কমিটির সুপারিশের ভিত্তিতেই বাবর আজমকে পুনরায় অধিনায়কত্বের গুরু দায়িত্ব দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। বোর্ডের সূত্রের বরাত দিয়ে এক প্রতিবেদনে এমনটাই দাবি জিও নিউজের। আসন্ন নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজ দিয়েই নেতৃত্বে ফিরবেন বাবর। 

বিশ্ব ক্রিকেটে ‘আনপ্রেডিক্টেবল’ হিসেবে পরিচিতি আছে পাকিস্তানের। কখনো জেতা ম্যাচ যেমন হেরে বসে থাকে, আবার নিশ্চিত হারের ম্যাচেও অবিশ্বাস্যভাবে জিতে যায় কখনো কখনো। ক্রিকেটারদের মতো দেশটির ক্রিকেট বোর্ডেও কখন কী হয় কেউ জানে না। পিসিবির খোদ চেয়ারম্যান থেকে শুরু করে নির্বাচক কিংবা কোচ কারও পদই টেকসই বলা যায় না। গেল কয়েক মাসের কথাই ধরা যাক, বারবার রদবদল এসেছে পিসিবির বিভিন্ন পদে।  গত বছর ভারতে আয়োজিত বিশ্বকাপে বাবরের নেতৃত্বেই খেলেছিল পাকিস্তান। কিন্তু খারাপ পারফরম্যান্সের জেরে গ্রুপপর্ব থেকেই ছিটকে যায় ম্যান ইন গ্রিনরা। সমর্থক তথা বোর্ডের তীব্র সমালোচনার মুখেও পড়তে হয় তাকে। এরপরই সব ফরম্যাটের নেতৃত্ব থেকে সরে দাঁড়ান বাবর। ফলে নতুন অধিনায়কের খোঁজ শুরু করে পিসিবি। ঠিক হয়, ওয়ানডে ও টেস্টে শান মাসুদ এবং টি-টোয়েন্টিতে নেতৃত্ব দেবেন শাহিন শাহ আফ্রিদি।

দেশটির গণমাধ্যমে গুঞ্জন, কয়েক মাসেই নাকি নতুন অধিনায়কদের নিয়ে পিসিবির মোহভঙ্গ হয়েছে! আবারও নাকি বাবরেই ভরসা রাখতে চাইছে পিসিবি। এবার সেটি নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তই নিয়ে ফেলেছে চেয়ারম্যান মহসিন নকভীর নেতৃত্বাধীন বোর্ড। কিউই সিরিজ ও টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ সামনে রেখে ২৯ সদস্যের দল কাকুলে ট্রেনিং করছে। সেখানেই অধিনায়ক হিসেবে যোগ দেওয়ার কথা রয়েছে বাবরের। এদিকে, শাহিন আফ্রিদিকে নেতৃত্ব না ছাড়তেই পরামর্শ দিয়েছিল তার ঘনিষ্ঠজনরা। যদিও অধিনায়কত্ব থেকে সরে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্তই নিয়েছেন তারকা এই পেসার। সম্প্রতি অধিনায়কত্ব ইস্যুতে কথা বলেছেন দেশটির কিংবদন্তি শহিদ আফ্রিদি। শাহিনকে টি-টোয়েন্টি নেতৃত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়া ঠিক হবে না বলে মনে করেন সাবেক এই পাক অধিনায়ক। তার মতে, অধিনায়কত্ব ঘিরে ভুলের মধ্যে ঘুরপাক খাচ্ছে পিসিবি।

রেডিওটুডে/এমএমএইচ

সর্বশেষ

সর্বাধিক সবার কাছের