বুধবার,

০৪ আগস্ট ২০২১,

১৯ শ্রাবণ ১৪২৮

পরীক্ষামূলক প্রকাশ

বুধবার,

০৪ আগস্ট ২০২১,

১৯ শ্রাবণ ১৪২৮

Radio Today News

বিশ্বের দ্বিতীয় ব্যক্তি হিসেবে ‘অলিম্পিক লরেল’ সম্মাননা পাচ্ছেন ড. ইউনূস

রেডিওটুডে রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১৮:১৬, ১৫ জুলাই ২০২১

আপডেট: ০০:১৮, ১৬ জুলাই ২০২১

বিশ্বের দ্বিতীয় ব্যক্তি হিসেবে ‘অলিম্পিক লরেল’ সম্মাননা পাচ্ছেন ড. ইউনূস

ড. মুহাম্মদ ইউনূস

আসন্ন টোকিও অলিম্পিক গেমসে ‘অলিম্পিক লরেল’ সম্মাননা পেতে যাচ্ছেন শান্তিতে নোবেল পুরস্কার বিজয়ী একমাত্র বাংলাদেশি ও গ্রামীণ ব্যাংকের প্রতিষ্ঠাতা ড. মুহাম্মদ ইউনূস।

বিশ্বের দ্বিতীয় ব্যক্তি হিসেবে এই সম্মাননা পেতে যাচ্ছেন তিনি। আজ বৃহস্পতিবার এই সংশ্লিষ্ট এক বিবৃতি প্রকাশ করেছে আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটি (আইওসি)। 

বিবৃতিতে বলা হয়, "ক্ষুদ্রঋণ প্রকল্পের মাধ্যমে দারিদ্র বিমোচনে বিশেষ অবদান রেখে বিশ্বব্যাপী প্রশংসিত হয়েছেন ড. ইউনূস। এবার ক্রীড়াক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের জন্য অলিম্পিকে ৮১ বছর বয়সী অর্থনীতিবিদকে এই বিশেষ সম্মাননা প্রদান করা হবে।"

‘অলিম্পিক লরেল’ পদক মূলত তাদেরকেই প্রদান করা হয় যারা শিক্ষা, সংস্কৃতি, উন্নয়ন এবং শান্তি প্রতিষ্ঠায় বিশেষ অবদান রাখেন। সেই লক্ষ্যে ২০১৬ সালে প্রথমবারের মতো ‘অলিম্পিক লরেল’ পদক দেওয়ার প্রচলন শুরু হয়। সেবার রিও অলিম্পিকে এই সম্মানজনক পদক দেওয়া হয় কেনিয়ার সাবেক অলিম্পিয়ান কিপ কেইনোকে।

কিপ কেইনোর পর ড. ইউনূস হতে যাচ্ছেন ‘অলিম্পিক লরেল’ সম্মাননা পাওয়া দ্বিতীয় ব্যক্তি।  আগামী ২৩ জুলাই 'টোকিও অলিম্পিক-২০২০' এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এই পুরস্কার গ্রহণ করবেন ৮১ বয়সী এ প্রবীণ বাংলাদেশি অর্থনীতিবিদ।  

অলিম্পিক প্রেসিডেন্ট থমাস বাখ এ প্রসঙ্গে বলেন, প্রফেসর ইউনূস আমাদের সকলের জন্য অনুপ্রেরণা। তিনি আরও বলেন, প্রফেসর ইউনূস তাঁর সামাজিক ব্যবসায়ের ধারণাকে ক্রীড়া জগতে উন্নয়নের জন্য কাজ করার জন্য এই সম্মান পাবেন।

১৯৮০ সালে ক্ষুদ্রঋণ বিতরণের জন্য গ্রামীণ ব্যাংক প্রতিষ্ঠা করেন ড. ইউনূস। এরপর ২০০৬ সালে শান্তিতে নোবেল পুরস্কার পান তিনি। প্রফেসর ইউনূসের বিভিন্ন উদ্যোগের মধ্যে রয়েছে ‘ইউনূস স্পোর্টস হাব’। এর মাধ্যমে একটি সামাজিক নেটওয়ার্ক গড়ে তুলেছেন তিনি। এই প্রতিষ্ঠানে খেলাধুলার মাধ্যমে উন্নতির পথকে আরও সহজের চেষ্টা করে। এর আগে ২০১৬ সালে ব্রাজিলে রিও অলিম্পিকে মশাল বহন করার জন্য নির্বাচিত হয়েছিলেন প্রফেসর ড. মুহাম্মদ ইউনূস।

রেডিওটুডে নিউজ/ইকে

সর্বশেষ

সর্বাধিক সবার কাছের