মঙ্গলবার,

১৮ মে ২০২১

ডিসেম্বরে ৮৮ কোটি টাকার চোরাচালানি পণ্য জব্দ করেছে বিজিবি

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ২০:১৬, ১ জানুয়ারি ২০২১

আপডেট: ২০:৩৪, ১ জানুয়ারি ২০২১

ডিসেম্বরে ৮৮ কোটি টাকার চোরাচালানি পণ্য জব্দ করেছে বিজিবি

প্রতীকী ছবি

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) ডিসেম্বর মাসে মাদক ও চোরাচালান পণ্যসহ ৮৮ কোটি ২৪ লাখ ৫৩ হাজার টাকার মালামাল জব্দ করেছে। শুক্রবার বিজিবি সদর দপ্তরের জনসংযোগ কর্মকর্তা শরিফুল ইসলাম গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি গণমাধ্যমকে জানান, দেশের বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে বিজিবি এসব মালামাল জব্দ করে। জব্দ হওয়া মালামালের মূল্য ৮৮ কোটি ২৪ লাখ ৫৩ হাজার টাকা।

জব্দ হওয়া মাদকের মধ্যে রয়েছে ১০ লাখ ২৬ হাজার ৬১০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট ৭০ হাজার ১৩ বোতল ফেনসিডিল, ২১ হাজার ৭৪৭ বোতল বিদেশি মদ, এক হাজার ৪০৮ ক্যান বিয়ার, এক হাজার ৪২৩ কেজি গাঁজা, ৬ কেজি ২ গ্রাম হেরোইন, ১১ হাজার ৯৮টি উত্তেজক ইনজেকশন, ১৮ হাজার ৪৮৫টি অ্যানেগ্রা/সেনেগ্রা ট্যাবলেট এবং ১২ লাখ ৬৯ হাজার ২৬৫টি অন্যান্য ট্যাবলেট।

আর জব্দকৃত অন্যান্য চোরাচালান পণ্যের মধ্যে রয়েছে ১২ কেজি ৯৭৭ গ্রাম স্বর্ণ, ১৪ কেজি ৩৪৪ গ্রাম রুপা, এক হাজার ৩৩টি ইমিটেশনের গয়না, ৫৪ হাজার ৩০৪টি কসমেটিক্স সামগ্রী, পাঁচ হাজার ৯৫৪টি শাড়ি, ৬৬৩টি থ্রিপিস/শার্ট পিস, তিন হাজার ৪৬৮টি তৈরি পোশাক, ৩৪৩ মিটার থান কাপড়, পাঁচ হাজার ১৯৮ ঘণফুট কাঠ, তিন হাজার ৭৯২ কেজি চা পাতা, দুই হাজার ৬১০ কেজি কয়লা, একটি ট্রাক, ১২টি প্রাইভেটকার, ৮টি পিকআপ, ২১টি সিএনজি/ইঞ্জিন চালিত অটোরিকশা এবং ৮৮টি মোটর সাইকেল।

উদ্ধারকৃত অস্ত্রের মধ্যে রয়েছে একটি পিস্তল, ১৪টি বন্দুক এবং ৯৫৯ রাউন্ড গুলি। এছাড়াও সীমান্তে বিজিবি’র অভিযানে ইয়াবাসহ বিভিন্ন প্রকার মাদক পাচার ও অন্যান্য চোরাচালানে জড়িত থাকার অভিযোগে ২৮২ জন চোরাকারবারি এবং অবৈধভাবে সীমান্ত অতিক্রমের দায়ে ১৭৩ জন বাংলাদেশি নাগরিক ও ৮ জন ভারতীয় নাগরিককে আটকের পর তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

সম্পর্কিত বিষয়: