রোববার,

১৬ মে ২০২১

শীতে মিষ্টি আলু কেন খাবেন?

অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৫:৪৯, ৩০ ডিসেম্বর ২০২০

আপডেট: ১১:৩০, ৯ জানুয়ারি ২০২১

শীতে মিষ্টি আলু কেন খাবেন?

মিষ্টি আলু

গোল আলুর সকল স্বাস্থ্য উপকারিতাই মিষ্টি আলুতে রয়েছে এবং এছাড়াও মিষ্টি আলু আরো কিছু উপকার করে। লস অ্যাঞ্জেলেস ও সান ফ্রান্সিসকোর স্পোর্টস ডায়েটিশিয়ান ইয়াসি আনসারি বলেন, ‘সাধারণত আপনার খাদ্য তালিকায় যত বেশি রঙিন ফল ও শাকসবজি যোগ করা যায় তত ভালো।’

অনেকেই হয়তো জানেন না, মিষ্টি আলু বা রাঙা আলু শীতকালে শরীরকে কেবল উষ্ণতাই দেয় না, নানা রোগের হাত থেকে বাঁচায়। এই সময়ে মিষ্টি আলু খেলে যেসব উপকারিতা পাওয়া যায়- 

মিষ্টি আলুতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন এ এবং ভিটামিন সি রয়েছে। তাই এই আলু সাধারণ আলুর চেয়ে অনেক বেশি পুষ্টিকর। মিষ্টি আলুর গ্লাইসেমিক ইনডেক্সও খুব কম, তাই এটি ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য উপকারী।

মিষ্টি আলু খেলে চোখের স্বাস্থ্য ভালো থাকে। চোখ ভালো রাখতে এ সময় খাদ্য তালিকায় মিষ্টি আলু অন্তর্ভুক্ত করতে পারেন। মিষ্টি আলুতে থাকা ভিটামিন এ দৃষ্টিশক্তি ভালো রাখতে সহায়তা করে। এই ভিটামিন রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতেও ভূমিকা রাখে।

মিষ্টি আলুতে থাকা ফাইবার, ক্যালসিয়াম, প্রোটিন, আয়রন, ম্যাগনেসিয়াম, পটাসিয়াম, ভিটামিন-এ, বি এবং সি শরীরের জন্য খুবই উপকারী। এতে থাকা পটাশিয়াম, ফাইবার হৃৎপিণ্ড সুস্থ রাখতে ভূমিকা রাখে। পাশাপাশি এটি রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণেও সহায়তা করে। মিষ্টি আলুতে থাকা পটাশিয়াম, ফাইবার হৃদরোগ সম্পর্কিত যেকোনো সমস্যার ঝুঁকি কমাতে সহায়তা করে।

শীতকালে অ্যাজমা রোগীদের বেশি সমস্যা হয়। মিষ্টি আলু খেলে অ্যাজমায় আক্রান্তরা স্বস্তি পেতে পারেন। শীতের সময় কাশি-সর্দি, ভাইরাল ফিভার হয়। মিষ্টি আলুতে থাকা ভিটামিন সি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা শক্তিশালী করতে পারে। এছাড়া মিষ্টি আলু শরীরে আয়রন শোষণে এবং রক্তের ঘাটতি পূরণ করতে সহায়তা করে।

মিষ্টি আলুর সঙ্গে ফ্যাট সমন্বয়ের একটি স্বাস্থ্যসম্মত অপশন হচ্ছে অলিভ অয়েল- বেকিংয়ের পূর্বে মিষ্টি আলুর ওপর অল্প পরিমাণে অলিভ অয়েল ছিটাতে পারেন। অন্য একটি উপায় হচ্ছে অ্যাভোক্যাডো, পিক্যান অথবা আখরোটের পাশাপাশি মিষ্টি আলু খাওয়া।

সম্পর্কিত বিষয়: