শনিবার,

১৮ মে ২০২৪,

৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

শনিবার,

১৮ মে ২০২৪,

৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

Radio Today News

শরীরে শূকরের কিডনি প্রতিস্থাপন করা প্রথম ব্যক্তির মৃত্যু

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ১০:৩৮, ১৩ মে ২০২৪

Google News
শরীরে শূকরের কিডনি প্রতিস্থাপন করা প্রথম ব্যক্তির মৃত্যু

৬২ বছর বয়সে ইতিহাস সৃষ্টি করেছিলেন যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক রিচার্ড স্লেম্যান। বিশ্বে তিনিই প্রথম ব্যক্তি যার শরীরে প্রথম শূকরের কিডনি সফলভাবে প্রতিস্থাপন করা হয়েছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তিনি আর বাঁচলেন না।

শনিবার (১১ মে) পরিবারের পক্ষ থেকে তার মৃত্যু বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাসাচুসেটস জেনারেল হাসপাতাল (এমজিএইচ) রোববার জানিয়েছে, দুই মাস আগে তাঁর শরীরে জিনগতভাবে পরিবর্তন আনা শূকরের কিডনি প্রতিস্থাপন করা হয়েছিল।

স্লেম্যানের বয়স হয়েছিল ৬২ বছর। তিনি কিডনি রোগের পাশাপাশি ডায়াবেটিস ও উচ্চ রক্তচাপে ভুগছিলেন। গত ১৬ মার্চ ম্যাসাচুসেটস জেনারেল হাসপাতালে তাঁর শরীরে কিডনি প্রতিস্থাপনের অস্ত্রোপচার করা হয়। তবে ওই প্রতিস্থাপনের কারণে স্লেম্যানের মৃত্যু হওয়ার কোনো ইঙ্গিত পাওয়া যায়নি বলে জানিয়েছিলো হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

এর আগেও একাধিকবার মানুষের শরীরে জিনগত পরিবর্তন ঘটানো শূকরের অঙ্গ প্রতিস্থাপন করা হয়েছিল। প্রথমটি ২০২২ সালের জানুয়ারিতে এবং দ্বিতীয়টি ২০২৩ সালের সেপ্টেম্বরে। তবে উভয় রোগীই দুই মাসেরও কম সময়ের মধ্যে মারা যান।

এক বিবৃতিতে স্লেম্যানের পরিবার চিকিৎসকদের প্রতি ধন্যবাদ জানিয়ে বলেছেন, তাদের অসামান্য প্রচেষ্টার কারণেই আমরা আরও সাত সপ্তাহ স্লেম্যানকে আমাদের সঙ্গে পেয়েছিলাম।

তারা আরও বলেন, স্লেম্যানের এই অস্ত্রোপচার বেঁচে থাকার জন্য যাদের বিভিন্ন অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ প্রতিস্থাপন করা জরুরি, সেসব মানুষের আশা জোগাবে।

উল্লেখ্য, যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে এক লাখেরও বেশি রোগী প্রতিস্থাপন সংক্রান্ত অস্ত্রোপচারের অপেক্ষায় রয়েছেন। এছাড়াও অস্ত্রোপচারের সুযোগ আসার আগেই দেশটিতে প্রতিবছর হাজারো মানুষ মারা যাচ্ছে।

রেডিওটুডে নিউজ/আনাম

সর্বশেষ

সর্বাধিক সবার কাছের