বুধবার,

২০ অক্টোবর ২০২১,

৫ কার্তিক ১৪২৮

পরীক্ষামূলক প্রকাশ

বুধবার,

২০ অক্টোবর ২০২১,

৫ কার্তিক ১৪২৮

Radio Today News

শুধু গান গেয়ে পরিচয়

আবিদ আজম

প্রকাশিত: ১৯:৩৭, ৪ সেপ্টেম্বর ২০২১

আপডেট: ২০:৫৭, ৪ সেপ্টেম্বর ২০২১

শুধু গান গেয়ে পরিচয়

সাবিনা ইয়াসমীন

১৯৭২ সালে বোম্বের এক অনুষ্ঠানে হল ভর্তি শ্রোতাদের সামনে গান গেয়ে সবার মন জয় করে নেন এক কিশোরী। হঠাৎ সেই অনুষ্ঠানে শিল্পী লতা মুঙ্গেস্করকে আসতে দেখে ভয়ে গান বন্ধ করে দিলেও, সবার অনুরোধে আবারও গান গাইতে শুরু করেন তিনি। পরে পর্যায়ক্রমে বাংলাদেশের গন্ডি ছাড়িয়ে তাঁর যাদুকরী সুরেলা কন্ঠ ছড়িয়ে পড়ে বিশ্বব্যাপী। দীর্ঘ চার দশক ধরে শ্রোতাদের বিমোহিত করে রাখা বাংলা গানের কালজয়ী এই সঙ্গীতশিল্পীর নাম সাবিনা ইয়াসমীন।

শৈশবে ওস্তাদ পিসি গোমেজের কাছে একটানা ১৩ বছর সঙ্গীতের তালিম নিয়েছেন, সাবিনা ইয়াসমীন। নতুন সুর সিনেমায় শিশু শিল্পী হিসেবে গান করার পর ১৯৬৭ সালে আগুন নিয়ে খেলা সিনেমার মাধ্যমে প্লেব্যাকের জগতে পা রাখেন, সাবিনা ইয়াসমীন। সেই থেকে জীবনব্যাপী সিনেমায় ১২ হাজারের বেশি গান করেছেন এই প্লেব্যাক সম্রাজ্ঞী।
 
সাবিনা ছাড়াও পাঁচ বোনের মধ্যে ফরিদা ইয়াসমীন, ফওজিয়া খান, নীলুফার ইয়াসমীন-এই তিন বোন সঙ্গীত জগতের ব্যাপক পরিচিত নাম। আধুনিক গান থেকে শুরু করে রবীন্দ্র সঙ্গীত, উচ্চাঙ্গ, ধ্রুপদী, লোকসঙ্গীত, দেশাত্ববোধক ও মিশ্র আঙ্গিকের সুরেলা গান রয়েছে বরেণ্য এ শিল্পীর অবাধ বিচরণ। চলচ্চিত্রের গানের পাশাপাশি এ পর্যন্ত প্রকাশ পেয়েছে সাবিনা ইয়াসমীনের ত্রিশের অধিক অডিও এ্যালবাম। গাজী মাজহারুল আনোয়ারের উল্কা নামের একটি সিনেমাতে অভিনয়ও করেন, প্রিয় এই সঙ্গীত শিল্পী।

সুরের দুনিয়ার গানের পাখি সাবিনা ইয়াসমীন রেকর্ড মোট তেরোবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ছাড়াও ১৯৮৪ সালে একুশে পদক ও ১৯৯৬ সালে পেয়েছেন স্বাধীনতা পুরস্কার। প্রাতিষ্ঠানিক লেখাপড়ায় সাবিনা ইয়াসমীন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সমাজ বিজ্ঞান বিভাগ থেকে স্নাতক ও স্নাতোকোত্তর ডিগ্রী অর্জন করেন।

১৯৫৪ সালের ৪ সেপ্টেম্বর ঢাকায় মায়ের কোল আলো করে জন্ম নেন, বাংলা গানকে অসীম উচ্চতায় নিয়ে যাওয়া চিরসবুজ এই শিল্পী। জন্মদিনে, বাংলা গানের জগতের এই সম্রাজ্ঞীকে রেডিও টুডের পক্ষ থেকে জানাই অনেক অনেক শুভেচ্ছা ও ভালবাসা।

রেডিওটুডে নিউজ/ইকে

সর্বশেষ

সর্বাধিক সবার কাছের