রোববার,

০৫ ডিসেম্বর ২০২১,

২০ অগ্রাহায়ণ ১৪২৮

রোববার,

০৫ ডিসেম্বর ২০২১,

২০ অগ্রাহায়ণ ১৪২৮

Radio Today News

করোনায় আরও এক কীর্তিমানের বিদায়

গীতিকবি ফজল-এ-খোদা আর নেই

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৪:৫৬, ৪ জুলাই ২০২১

গীতিকবি ফজল-এ-খোদা আর নেই

ফজল-এ-খোদা

বিখ্যাত গান 'সালাম সালাম হাজার সালাম' গানের গীতিকার বিশিষ্ট গীতিকবি ফজল-এ-খোদা আর নেই।

আজ রবিবার ভোর আনুমানিক ৪টার তিনি রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে করোনায় আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৮১ বছর। 

১৯৪১ সালের ৯ মার্চ পাবনার বেড়া থানার বনগ্রামে জন্মগ্রহন করেন এই বরেণ্য গীতিকবি।

ফজল-এ-খোদা ছিলেন একজন কবি, ছড়াকার ও গীতিকার। তার রচিত ‘সালাম সালাম হাজার সালাম’ গানটি বিবিসির জরিপে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাংলা গানের তালিকায় সেরা ২০ গানের মধ্যে ১২তম স্থানে ছিল। 

ষাটের দশক থেকে শুরু করে ২০১৫ সাল পর্যন্ত  প্রায় ৫০ বছর ফজল-এ-খোদা অসংখ্য দেশাত্মবোধক, আধুনিক, লোক সংগীত, ইসলামী গান রচনা করেছেন।

তার লেখা উল্লেখযোগ্য গানের মধ্যে রয়েছে ,‘ভালোবাসার মূল্য কত’ , ‘বাসন্তী রং শাড়ি পরে কোন রমণী চলে যায়’, ‘প্রেমের এক নাম জীবন’, ‘যে দেশেতে শাপলা শালুক ঝিলের জলে ভাসে’,‘ কলসি কাঁধে ঘাটে যায় কোন রুপসী’, আমি প্রদীপের মত রাত জেগেজেগে’ , ‘ভাবনা আমার আহত পাখির মত’  ইত্যাদি।  

১৯৬৩ সালে বাংলাদেশ বেতারে গীতিকার হিসাবে তালিকাভুক্ত হন ফজল-এ-খোদা । এর পরের বছরই টেলিভিশনে গীতিকার হিসাবে তালিকাভুক্ত হন।  এছাড়া, শিশু-কিশোরদের সংগঠন শাপলা শালুকের  আসরের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালকও ছিলেন ঢাকা বেতারের এ সাবেক আঞ্চলিক পরিচালক।

দেশ বরেণ্য ব্যক্তিত্ব ফজল-এ-খোদার মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। 

প্রধানমন্ত্রী মরহুমের রুহের মাগফিরাত কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

সর্বশেষ

সর্বাধিক সবার কাছের