মঙ্গলবার,

২৮ মে ২০২৪,

১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

মঙ্গলবার,

২৮ মে ২০২৪,

১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

Radio Today News

হাত ও পা অবশ হয়ে যাচ্ছে? শরীরে কোন রোগ বাসা বাধেনি তো?

রেডিও টুডে রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১০:০০, ২০ মার্চ ২০২৩

আপডেট: ১০:০১, ২০ মার্চ ২০২৩

Google News
হাত ও পা অবশ হয়ে যাচ্ছে? শরীরে কোন রোগ বাসা বাধেনি তো?

হাত পা অবশ হয়ে যাওয়ার কারণ

অনেকেই ঘুম থেকে ওঠার পর হাত বা পায়ের আঙ্গুল অবশ অনুভব করেন। অনেকে মনে করে থাকেন একপাশ ফিরে বেশিক্ষণ শুয়ে থাকার কারণে দেহের অতিরিক্ত চাপেও এমনটা হয়ে থাকতে পারে। এ ধারণা যে একেবারে ভুল তা বলা যাবে না। এ প্রসঙ্গে চিকিৎসকরা জানান, বেশ কিছুক্ষণ একভাবে শুয়ে থাকার কারণে রক্ত সঞ্চালন স্বাভাবিকভাবে হতে পারে না। সেক্ষেত্রে হাত অথবা পায়ের স্নায়ুগুলি কাজ নাও করতে পারে। কিন্তু এছাড়াও আরো বেশ কিছু কারণ রয়েছে যে কারণে হাত বা পায়ের আঙ্গুল অবশ হয়ে যেতে পারে।

১) ডায়াবেটিক নিউরোপ্যাথি

দীর্ঘদিন ধরে শরীরে ডায়াবেটিস থাকার কারনেও হাত-পা অবশ হয়ে যাওয়ার মতো সমস্যা দেখা দিতে পারে। কারণ রক্তে শর্করার পরিমাণ অনিয়ন্ত্রিত অবস্থায় থাকলে হাত এবং পায়ের স্নায়ু ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে থাকে। এ সময় কোন কিছু ধরতে গেলে হাত থেকে পড়ে যাওয়ার মত অবস্থা হয়। অনেক সময়ই আঘাত লাগলে রোগী টেরও পাননা।

২) শোয়ার ভঙ্গি

অনেক সময় লক্ষ্য করা যায়, শোয়ার দোষেও হাত বা পা অবশ হয়ে যেতে পারে। বিশেষ করে একপাস ফিরে শুলে পুরো শরীরের ভার একদিকে পড়ে, তখন এ ধরনের সমস্যা লক্ষ্য করা যায়। এছাড়া ঘুম থেকে ওঠার পর আঙ্গুল মুড়াতেও অসুবিধা হয়ে থাকে।

৩) ভিটামিন বি ১২ এর অভাব

শরীরে নানা রকম ভিটামিনের অভাবে অনেক সময় হাত পা অসাড় হয়ে যাওয়ার সমস্যা লক্ষ্য করা যায়। যাকে চিকিৎসা পরিভাষায় 'পেরিফেরাল নিউরোপ্যাথি' বলা হয়ে থাকে। এই সমস্যা থাকলে ঘুম থেকে উঠে হাত পায়ের আঙ্গুলের স্নায়ু সঠিকভাবে কাজ করতে চায় না।

৪) স্ট্রোক

হাত অথবা পায়ের আঙ্গুল অবশ হয়ে যাওয়া কিন্তু স্ট্রোকের লক্ষণও হতে পারে। কারণ স্ট্রোক হলে মস্তিষ্কে রক্ত সঞ্চালন ব্যাহত হয়। তখন মস্তিষ্কের স্নায়ু অঙ্গ-প্রত্যঙ্গের বিভিন্ন অংশকে সঠিকভাবে পরিচালনা করতে পারে না। যদিও সবক্ষেত্রেই যে এমনটা হবে তার কোনও মানে নেই।

৫) রক্ত সঞ্চালন ব্যাহত হওয়া

রক্ত সঞ্চালনে ব্যাঘাত ঘটলেও হঠাৎ করে হাত পা ঠান্ডা হয়ে যাওয়ার মত সমস্যা লক্ষ্য করা যায়। চিকিৎসা পরিভাষায় যাকে 'রেনডস ডিজিজ' বলা হয়। তবে এক্ষেত্রে দেখা যায় রক্ত সঞ্চালনের পাশাপাশি ত্বকের রংও ফ্যাকাসে হতে থাকে।

এস আর

সর্বশেষ

সর্বাধিক সবার কাছের