বুধবার,

১৯ মে ২০২১

নতুন বছরে ৩ সেবা আনলো সীমান্ত ব্যাংক

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশিত: ২২:৫৯, ৩১ ডিসেম্বর ২০২০

নতুন বছরে ৩ সেবা আনলো সীমান্ত ব্যাংক

ইংরেজি নববর্ষ উপলক্ষ্যে এবং করোনাকালে মানুষের প্রয়োজনের কথা মাথায় রেখে তিনটি নতুন সেবা নিয়ে এসেছে সীমান্ত ব্যাংক। এসএমবিএল নারীশক্তি, এসএমবিএল প্রযুক্তি ঋণ ও এসএমবিএল সৈনিক ভবিষ্যৎ নামে এই তিন নতুন সেবা চালু হচ্ছে।

এ সম্পর্কে সবাইকে জানাতে বৃহস্পতিবার বিকালে সীমান্ত ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মুখলেসুর রহমান এবং ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্যরা।

নারীদের আত্মনির্ভর করতে সীমান্ত ব্যাংকের নতুন উদ্যোগ ‘এসএমবিএল নারীশক্তি’। গ্রামের যেসব নারী ন্যূনতম তিনমাস কোনো অর্থ উপার্জনের কাজে জড়িত আছেন এবং বয়স ২২ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে তারা ফসলচাষ, হাঁস-মুরগির খামার, মত্স্য ও গবাদিপশু পালন, হস্তশিল্প, টেইলারিং, পার্লার, বুটিক শপ ইত্যাদি কাজের জন্য সহজশর্তে বিনা জামানতে ১০ হাজার টাকা থেকে ১ লাখ টাকা ঋণ নিতে পারবেন। সেই সঙ্গে তারা একটি বিশেষ ডেবিটকার্ড পাবেন, যার মাধ্যমে তারা এটিএম এবং পিওএস মেশিনের মাধ্যমে আর্থিক লেনদেন করতে পারবেন।

কভিডকালে শিক্ষার্থীদের শিক্ষাজীবন সহজ করতে সীমান্ত ব্যাংক নিয়ে এসেছে ‘এসএমবিএল প্রযুক্তি ঋণ’। ২২ থেকে ৬০ বছর বয়সী চাকরিজীবী, ব্যবসায়ী, চিকিৎসক, স্থপতি, প্রকৌশলী, চার্টার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্ট ও বিজিবি সদস্যরা ৩০ হাজার থেকে ২ লাখ টাকা ঋণ নিতে পারবেন। ল্যাপটপ, ডেক্সটপ, মোবাইল ফোন, ট্যাব, স্ক্যানার, প্রিন্টার, আইপিএস এবং আনুসঙ্গিক সামগ্রী ইত্যাদি এই ঋণের মাধ্যমে কেনা যাবে। 

এছাড়া বিজিবি সৈনিকদের কষ্টার্জিত সঞ্চয় দ্বিগুণ করার উদ্দেশ্যে সীমান্ত ব্যাংক নিয়ে এসেছে ‘এসএমবিএল সৈনিক ভবিষ্যৎ’। এই স্কিমের আওতায় এককালীন জমাকৃত অর্থ ৮ বছরে দ্বিগুণ হবে। ৫০ হাজার টাকা থেকে ৫ লাখ টাকা পর্যন্ত বিনিয়োগযোগ্য জমানো টাকার বিপরীতে ঋণ সুবিধাও পাওয়া যাবে।

‘সীমাহীন আস্থা’ স্লোগানকে সামনে রেখে বিজিবি ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের মালিকানায় ২০১৬ সালের ১ সেপ্টেম্বের যাত্রা শুরু করে সীমান্ত ব্যাংক লিমিটেড। 

গত চার বছরে ব্যাংকের ১৮টি শাখা স্থাপিত হয়েছে।  এর মধ্যে মধ্যে ঢাকা বিভাগে ৪টি, চট্টগ্রামে ৬টি, ময়মনসিংহে ২টি, খুলনায় ৩টি, রংপুরে ১টি এবং সিলেটে ২টি শাখা রয়েছে।