রোববার,

২৭ নভেম্বর ২০২২,

১৩ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯

রোববার,

২৭ নভেম্বর ২০২২,

১৩ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯

Radio Today News

জয়ের পর স্টেডিয়াম পরিষ্কার করলেন জাপানিরা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ০৯:৩০, ২৪ নভেম্বর ২০২২

জয়ের পর স্টেডিয়াম পরিষ্কার করলেন জাপানিরা

ব্রাজিলে ২০১৪ সালে বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন হওয়া জার্মানিকে স্তব্ধ করে দিয়েছে এশিয়ার পরাশক্তি জাপান। কাতার বিশ্বকাপে বুধবার (২৩ নভেম্বর) চারবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের তারা হারিয়েছে ২-১ গোলে। এই অসাধারণ জয়ের পর জাপানি সমর্থকরা মন জয় করেছে পুরো বিশ্বর। জার্মানির বিপক্ষে জয়ের পর মাঠ ত্যাগ করার আগে নিজেদের ফেলে যাওয়া আবর্জনা পরিষ্কার করে গিয়েছে সামুরাই ব্লু সমর্থকরা।

২০১৪, ২০১৮ ও ২০২২ পরপর তিনটি বিশ্বকাপে একটা ছবি কমন দেখা গেছে। সেটা হলো বিশ্বকাপের ম্যাচের পর জাপান সমর্থকদের স্টেডিয়াম পরিষ্কার করা। এবারের বিশ্বকাপেও জাপানের সমর্থকরা স্টেডিয়াম পরিষ্কার করা অব্যাহত রেখেছেন। প্রথম ম্যাচ থেকে শুরু করে আজ জার্মানির বিপক্ষে ম্যাচে ঐতিহাসিক জয়ের পরও  স্টেডিয়াম পরিষ্কার করেই মাঠ ছেড়েছে জাপানের সমর্থকরা।

কাতারের খলিফা ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়ামে বুধবার ম্যাচের প্রথমার্ধে আধিপত্য বিস্তার করে খেলে জার্মানি। প্রথম হাফেই গুন্দোগানের পেনাল্টি থেকে লিড নিয়ে বিরতিতে যায় জার্মানরা। তবে দ্বিতীয় হাফে মুদ্রার ওপিঠ দেখে জার্মানরা। ৭৫ থেকে ৮৩ মিনিটের মধ্যে জার্মানিকে দুই গোল দিয়ে স্তব্ধ করে দেয় জাপানিজরা। 

ম্যাচ জয়ের পর দল যেমন পুরো বিশ্ব থেকে বাহবা পাচ্ছে, তেমনি তাদের সমর্থকরাও সুনাম কুড়াচ্ছে। প্রত্যেক জাপানিজ সমর্থককে যারা স্টেডিয়ামে নানা রকম ব্যাগ, খাবার নিয়ে এসেছিল সেগুলোর উচ্ছিষ্ট পরিষ্কার করতে দেখে গেছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের নানা ছবিতে। যা ইতিমধ্যে ভাইরাল হয়েছে। ম্যাচ শেষে সবাই যখন চলে যাচ্ছিল তখন তারা ব্যস্ত ছিল স্টেডিয়ামের আবর্জনা পরিষ্কার করতে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বেশকিছু ছবিতে দেখা যায়, কিছু জাপানিজ সমর্থক বিভিন্ন জায়গায় বোতল কুড়াচ্ছেন এবং ময়লা রাখার নির্দিষ্ট স্থানে তারা সেগুলো ফেলছেন। এ ম্যাচের পাশাপাশি বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচেও কিছু জাপানিজ সমর্থককে স্টেডিয়াম পরিষ্কার করতে দেখা গেছে। 

২০১৮ বিশ্বকাপের সময় স্টেডিয়ামের ময়লা আবর্জনা পরিষ্কার করে সকলের নজর কেড়েছিল জাপান। সেই বিশ্বকাপে ফেয়ার প্লের পুরস্কারও জিতেছিল তারা। সেই নজির আবারো সৃষ্টি করলো জাপানিরা।

সর্বশেষ

সর্বাধিক সবার কাছের