বুধবার,

৩০ নভেম্বর ২০২২,

১৬ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯

বুধবার,

৩০ নভেম্বর ২০২২,

১৬ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯

Radio Today News

যথাযথ ফল পেতে ভিটামিন ডি এর পাশাপাশি খেতে হবে ভিটামিন কে

রেডিও টুডে রিপোর্ট

প্রকাশিত: ২২:১১, ১৫ নভেম্বর ২০২২

যথাযথ ফল পেতে ভিটামিন ডি এর পাশাপাশি খেতে হবে ভিটামিন কে

সংগৃহিত ছবি

সামগ্রিকভাবে সুস্থ থাকার জন্য শরীরে দরকার হয় বিভিন্ন রকম ভিটামিনের। পর্যাপ্ত ভিটামিন না পেলে নানা রকমের শারীরিক সমস্যা দেখা দিতে শুরু করে। এমন অনেকে আছেন ভিটামিনের ঘাটতি পূরণ করতে চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়াই ইচ্ছে মতো ভিটামিন সাপ্লিমেন্ট খেয়ে থাকেন।

তেমনি ভাবে অনেকের ক্ষেত্রেই দেখা যায় যে তারা প্রতিদিন ভিটামিন ডি ট্যাবলেট খাচ্ছেন। কিন্তু তারা জানেন না ভিটামিন ডি ট্যাবলেটের কার্যকারিতা নির্ভর করে ভিটামিন কে এর উপর। তাই ভিটামিন ডি -এর পাশাপাশি খেতে হবে ভিটামিন কে।

আমাদের শরীর রোদের সংস্পর্শে এলে শরীরে ভিটামিন ডি উৎপন্ন হয়। বিভিন্ন ধরনের সামুদ্রিক মাছ, দুগ্ধ জাত খাদ্য ও ডিমেও ভিটামিন ডি পাওয়া যায় প্রচুর পরিমাণে। হাড়ের স্বাস্থ্য রক্ষাই ও ভিটামিন ডি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। কারণ হলো মুলত ক্যালসিয়াম দিয়ে তৈরি হয়ে থাকে। আর ক্যালসিয়াম বিপাক নিয়ন্ত্রণ করতে এই ভিটামিনটির ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এমনকি এই ভিটামিন ডি-এর অভাবে শরীরে 'অস্টিওপোরোসিসের' মত নানা রকম সমস্যা দেখা দিতে পারে।

স্বাস্থ্য সুরক্ষায় ভিটামিন ডি পরিমাণ মতো খাওয়ার পরামর্শ দিয়ে থাকেন চিকিৎসকরা। এই ভিটামিনের পরিমাণ মাত্রায় বেশি শরীরে প্রবেশ করলে 'হাইপারক্যালসিমিয়া' দেখা দিতে পারে। আর এই রোগের মাধ্যমে রক্তে ক্যালসিয়ামের মাত্রা বেড়ে যেতে থাকে। ফলে স্ট্রোক ও হৃদরোগের ঝুঁকিও অনেকাংশে বেড়ে যায়। তাই একজন পূর্ণবয়স্ক সুস্থ মানুষের প্রতিদিন দশ থেকে কুড়ি মাইক্রো গ্রামের বেশি ভিটামিন ডি খাওয়া উচিত নয় বলে চিকিৎসকরা  জানান।

অতিরিক্ত ভিটামিন যাতে শরীরে প্রবেশ করে শরীরের ক্ষতি না করতে পারে সেজন্য ভিটামিন ডি এর পাশাপাশি ভিটামিন কে খাওয়ার পরামর্শ দিয়ে থাকেন চিকিৎসকরা। কারণ ভিটামিন কে হাড়ের ক্যালসিয়াম সঞ্চয় এর মাত্রা বৃদ্ধি করে থাকে। ফলে রক্তে ক্যালসিয়াম জমতে দেয় না। হ্রাস পায় হৃদরোগের ঝুঁকিও। তবে যে ভিটামিনই খান না কেন তা খেতে হবে চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী পরিমাণ মতো। খেয়াল খুশিমতো যে কোন সাপ্লিমেন্ট খেলে উপকারের চেয়ে অপকারই বেশি হতে পারে বলে জানান চিকিৎসকরা।

এস আর

সর্বশেষ

সর্বাধিক সবার কাছের