মঙ্গলবার,

২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১,

১২ আশ্বিন ১৪২৮

পরীক্ষামূলক প্রকাশ

মঙ্গলবার,

২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১,

১২ আশ্বিন ১৪২৮

Radio Today News

বিশ্বব্যাপী ভ্যাকসিন বিতরণে অসমতা রয়ে গেছে: ডব্লিউএইচও প্রধান

রেডিওটুডে রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১১:৩২, ১ আগস্ট ২০২১

বিশ্বব্যাপী ভ্যাকসিন বিতরণে অসমতা রয়ে গেছে: ডব্লিউএইচও প্রধান

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মহাপরিচালক তেদোরোস আধানোম গেব্রেয়াসুস

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) মহাপরিচালক তেদোরোস আধানোম গেব্রেয়াসুস শুক্রবার জিনিভায় বিশ্বব্যাপী কোভিড -১৯ প্রাদুর্ভাব সম্পর্কে বলেছেন, মহামারী শেষ হবে যখন বিশ্ববাসী তা চাইবে। তবে বিশ্বব্যাপী ভ্যাকসিন বিতরণে অসমতা রয়ে গেছে।

তিনি বলেন, এই ভাইরাসটির ডেল্টা ধরণটিই এখন বেশী সংক্রমিত হচ্ছে। ইউএস সেন্টারস ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন (সিডিসি) বলছে যে, ডেল্টা ধরণটি গুটি বসন্তের মতোই সংক্রামক এবং যারা টিকা গ্রহণ করেছে ও যারা গ্রহণ করেনি, উভয় পক্ষের জন্যই এই ডেল্টা ধরণটি সমান সংক্রামক হতে পারে।

ডব্লিউএইচও’র লক্ষ্য হল সেপ্টেম্বরের শেষ নাগাদ প্রতিটি দেশের জনসংখ্যা কমপক্ষে ১০ শতাংশ জনগণকে টিকা দিতে  এই বছরের শেষের দিকে কমপক্ষে ৪০ শতাংশ এবং আগামী বছরের মাঝামাঝি জনসংখ্যার ৭০ শতাংশকে টিকা দিতে সহযোগিতা প্রদান। কিন্তু ডব্লিউএইচও প্রধান বলেছেন, এই লক্ষ্য অর্জন "অনেক দূরে"।

তেদোরোস আধানোম বলেছেন, এখন পর্যন্ত, অর্ধেকের কিছু বেশি দেশ তাদের জনসংখ্যার ১০ শতাংশকে সম্পূর্ণভাবে টিকা দিয়েছে, এক চতুর্থাংশেরও কম দেশ ৪০ শতাংশ জনগণকে টিকা দিয়েছে, এবং মাত্র তিনটি দেশ ৭০ শতাংশ জনগণকে টিকা দিয়েছে।

তিনি স্মরণ করিয়ে দেন যে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এর আগে সতর্ক করেছিল এই বলে যে, বিশ্বব্যাপী দরিদ্রদের মাঝে ভ্যাকসিন পৌঁছানো কঠিন হবে এবং তারা পেছনে পড়ে যাবে। টিকার অসমতার কারণে "বিশ্ব বিপর্যয়মূলক নৈতিক ব্যর্থতার দ্বারপ্রান্তে"।

তিনি বলেন, এখনো বিশ্বব্যাপী ভ্যাকসিন বিতরণে অসমতা রয়ে গেছে। সব অঞ্চলই ঝুঁকিতে রয়েছে, তবে আফ্রিকা অঞ্চলের মতো এতো বেশি ঝুঁকিতে আর কেউ নেই।

তিনি আরো বলেন, অনেক আফ্রিকান দেশ টিকা প্রদানের জন্য ভালো প্রস্তুতি নিয়েছে, কিন্তু টিকা আসেনি। বিশ্বব্যাপী টিকা প্রদানের ২ শতাংশেরও কম আফ্রিকায় দেয়া হয়েছে”। এই মহাদেশের জনসংখ্যার মাত্র ১.৫ শতাংশ জনগণকে সম্পূর্ণরূপে টিকা দেওয়া হয়েছে।

ডব্লিউএইচও প্রধান বলেছেন, তার সংস্থা একটি জরুরী কার্যক্রম হাতে নিচ্ছে। র‍্যাপিড অ্যাক্ট-এক্সিলারেটর ডেল্টা রেসপন্স, বা রাডার নামের এই কার্যক্রম চালু করার জন্য ৭৭০ কোটি ডলার তহবিলের "জরুরী আহ্বান" জানিয়েছে। এই কার্যক্রমে ডেল্টা ধরণটির পরীক্ষা, চিকিৎসা ও টিকা অন্তর্ভুক্ত থাকবে।

তিনি আরো বলেন, কোভ্যাক্স; যা নিম্ন আয়ের দেশগুলোতে টিকা সরবরাহ করে, তার জন্য আরো অতিরিক্ত তহবিল প্রয়োজন। ভোয়াবাংলা

রেডিওটুডে নিউজ/এসআই

সর্বশেষ

সর্বাধিক সবার কাছের