সোমবার,

২৪ জুন ২০২৪,

১০ আষাঢ় ১৪৩১

সোমবার,

২৪ জুন ২০২৪,

১০ আষাঢ় ১৪৩১

Radio Today News

ঈদুল আজহা: ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রির তারিখ ঘোষণা

রেডিওটুডে রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১৩:৩৯, ২৮ মে ২০২৪

আপডেট: ১৪:৫৭, ২৮ মে ২০২৪

Google News
ঈদুল আজহা: ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রির তারিখ ঘোষণা

আগামী ২ জুন থেকে ঈদুল আজহা উপলক্ষে শুরু হবে রেলের আগাম টিকিট বিক্রি শুরু হবে। চলবে ৬ জুন পর্যন্ত। এবারও শতভাগ অনলাইনে বিক্রি হবে। মঙ্গলবার (২৮ মে) সকালে রেল মন্ত্রণালয়ের জারি করা এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানানো হয়।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ঈদের ফিরতি টিকিট বিক্রি শুরু হবে ১০ জুন থেকে। ঈদ উপলক্ষে এবার যাত্রীদের জন্য ১০ জোড়া বিশেষ ট্রেন পরিচালিত হবে।

সকালে রেলপথ মন্ত্রণালয়ে সংবাদ সম্মেলনে রেলপথ মন্ত্রী জিল্লুল হাকিম বলেন, কোন টিকিট ফেরত বা রিফান্ড করা হবে না। ঢাকা থেকে বহির্গামী ট্রেনে বিভিন্ন রুটে সাড়ে ৩৩ হাজার টিকেট দেয়া হবে।

তিনি জানান, টিকেট বিক্রি শুরু হচ্ছে, জুনের ২ তারিখ থেকে। এদিন দেয়া হবে ১২ জুনের টিকেট। একইভাবে ৩ জুন ১৩ তারিখের ; ৪ তারিখ ১৪ তারিখের ; ৫ তারিখ ১৫ তারিখের এবং ৬ জুন দেয়া হবে ১৬ ই জুনের অগ্রিম টিকেট।

তবে, ঈদের চাঁদ দেখার ওপর ১৭, ১৮ ও ১৯ জুনের টিকেট বিক্রি করা হবে বলেও জানান তিনি।

ফিরতি টিকিট বিক্রি শুরু হবে, ১০ জুন থেকে। এদিন পাওয়া যাবে ২০ জুনের  টিকিট। একইভাবে ১১ জুন দেয়া হবে ২১ তারিখের ; ১২ তারিখ মিলবে ২২ তারিখের ; ১৩ জুন ২৩ জুনের এবং ১৪ জুন পাওয়া যাবে ২৪ জুনের ফিরতি টিকিট।

যাত্রীদের সুবিধার্থে যাত্রা ও ফিরতি সকল ট্রেনে সাধারণ শ্রেণির ২৫ শতাংশ টিকিট কাউন্টার থেকে সরাসরি কেনা যাবে যাবে। যাত্রীদের সুবিধার জন্য ২০টি বিশেষ ট্রেন দেয়া হবে। আন্তঃনগরসহ ৩৬৬টি ট্রেন চলাচলের ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

মন্ত্রী জানান, মানুষ যাতে বিনা বিড়ম্বনা টিকিট হাতে পায় সে প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে। টিকিটের কালোবাজারি হতে দেয়া হবে না। কালোবাজারির কাছ থেকে টিকিটের জন্য যেন কেউ হাত না পাতে, সে আহ্বান জানানো হয়েছে।

ব্রিফিংয়ে বলা হয়, শেষ ডেসটিনেশন নয়, যতটা ভ্রমণ করবে ততটাই যেন টিকিট কাটে সবাই। ছাদে যাতে কেউ ভ্রমণ না করে, সেদিকে বিশেষ নজর রাখা হবে। ঈদ আনন্দ বিষদে যাতে পরিণত না হয়, জনগণকে সাবধানে চলাচল করতে হবে। ট্রেনের ভেতর ময়লা আবর্জনা না ফেলতে অনুরোধ জানানো হয়েছে, সংবাদ সম্মেলনে।

এসময় রেলের মহাপরিচালক সৈয়দ শাহাদাৎ আলী বলেন, ২০টি আন্তঃনগর ট্রেন চলাচল করবে ঈদের আগে ও পরের তিন দিন। ১৭ জুন ঈদের দিন ধরে পরিকল্পনা সাজানো হয়েছে।

কালোবাজারি রোধে ওটিপি ব্যবস্থা এবারও থাকবে। অনলাইন হয়রানি এড়াতে জোন ভিত্তিক টিকিটের ব্যবস্থা করা হয়েছে। পশ্চিমাঞ্চলের টিকিট সকাল ৮টা থেকে এবং পূর্বাঞ্চলের টিকেট দুপুর ২টা থেকে অনলাইনে নির্ধারিত দিনে পাওয়া যাবে।  আন্তঃমহাদেশিয় ট্রেন গুলো এবারও ঈদের সময় চলাচল বন্ধ থাকবে। সেইসাথে পশু পরিবহনে ক্যাটেল স্পেশাল ট্রেন চলাচল করবে।

রেডিওটুডে নিউজ/আনাম

সর্বশেষ

সর্বাধিক সবার কাছের