রোববার,

১৬ মে ২০২১

মুশফিকুর রহিমকে জরিমানা করলো বিসিবি

স্পোর্টস ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৬:৪০, ১৫ ডিসেম্বর ২০২০

আপডেট: ০৫:৫৭, ১৩ জানুয়ারি ২০২১

মুশফিকুর রহিমকে জরিমানা করলো বিসিবি

নাসুমের দিকে অনেকটা ঘুষি মারার ভঙ্গিমা দেখান মুশফিক। ছবি: সংগৃহীত

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) কোড অব কনডাক্ট (আচরণবিধি) ভঙ্গের দায়ে বেক্সিমকো ঢাকার অধিনায়ক মুশফিকুর রহিমের ম্যাচ ফির ২৫ শতাংশ জরিমানা করা হয়েছে। সোমবার বঙ্গবন্ধু টি-২০ কাপে ঢাকা ও ফরচুন বরিশালের মাঝে প্রথম কোয়ালিফায়ার ম্যাচ চলাকালীন সময়ে আচরণবিধি ভঙ্গ করেছিলেন তিনি।

সতীর্থ নাসুম আহমেদের সঙ্গে অশোভন আচরণের দায়ে মুশফিককে এই শাস্তি দেয়া হয়। যা বিসিবির আচরণবিধির লেভেল ১ অমান্য করেছিল। ম্যাচ ফি জরিমানার পাশাপাশি ঢাকার অধিনায়কের নামের পাশে একটি ডিমেরিট পয়েন্ট যোগ হয়েছে। নামের পাশে ডিমেরিট পয়েন্ট সংখ্যা ৪ হলেই এক ম্যাচের নিষেধাজ্ঞা পাবেন তিনি।

ম্যাচ শেষে মুশফিকের বিরুদ্ধে অভিযোগটি আনেন অন-ফিল্ড আম্পায়ার গাজী সোহেল ও মাহফুজুর রহমান। মুশফিক দোষ স্বীকার করে নেয়ায় আনুষ্ঠানিক শুনানির প্রয়োজন হয়নি। 

এর আগে সোমবার ম্যাচের ১৭ তম ওভারে শফিকুল ইসলামের বলে পুল করতে গিয়ে ক্যাচ তুলে দেন বরিশালের ব্যাটসম্যান আফিফ হোসেন। দারুণ ব্যাটিং করা আফিফের ক্যাচটি উঠে উইকেটের পেছনে, তবে একটু দূরেই। হাওয়ায় বল ভাসতে থাকলে তালুবন্দি করতে একদিক থেকে দৌড়ান মুশফিক, অন্যদিক থেকে এগিয়ে আসেন স্পিনার নাসুম আহমেদ।

বারবার নাসুমকে কাছে না আসতে ইশারা করছিলেন মুশফিক। এক পর্যায়ে মুশফিক ক্যাচ নিলেও বলের দিকে চেয়ে দৌড়াতে থাকা নাসুমের সঙ্গে তিনি ধাক্কা খান। সে সময় আবেগকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারেননি ঢাকার অধিনায়ক। ক্যাচ নিয়েই নাসুমের দিকে অনেকটা ঘুষি মারার ভঙ্গিমা দেখান মুশফিক। সে সময় অধিনায়কের দিকে অপরাধীর মতো দৃষ্টিতে চেয়ে থাকেন নাসুম। পরবর্তীতে সতীর্থরা তাকে সান্তনা দেয়।

মুশফিকের ক্ষীপ্ত হওয়ার পেছনে শুধু যে এই কারণ তা নয়। এর আগে শফিকুল ইসলামের বাজে থ্রোর কারণে ইনিংসের শুরুর দিকে জীবন পান আফিফ। পরবর্তীতে আরেকবার সহজ সুযোগ হাতছাড়া করে তাকে রান আউট করতে পারেননি আল আমিন জুনিয়র। দলের এমন ছন্নছাড়া ফিল্ডিংয়েই মূলত রেগে ছিলেন মুশফিক।

এর আগে ব্যাট করতে নেমে ৮ উইকেটে ১৫০ রান করে বেক্সিমকো। যেখানে দলের হয়ে ৩০ বলে ৪৩ রানের দারুণ ইনিংস উপহার দেন মুশফিক। গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচটি ৯ রানে জিতে নিয়েছে তার দল। 

তবে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড বা টুর্নামেন্ট কর্তৃপক্ষ থেকে অবশ্য এখনও এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য আসেনি।