শুক্রবার,

৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২,

১৫ আশ্বিন ১৪২৯

শুক্রবার,

৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২,

১৫ আশ্বিন ১৪২৯

Radio Today News

কম খরচে মনের মত করে সাজিয়ে ফেলুন বসার ঘর

রেডিওটুডে রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১৯:৫৯, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২২

আপডেট: ২০:০০, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২২

কম খরচে মনের মত করে সাজিয়ে ফেলুন বসার ঘর

সংগৃহিত ছবি

সামনে রয়েছে পুজো। হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা পুজোকে সামনে রেখে করছেন নানা আয়োজন। সাজসজ্জা থেকে শুরু করে  রান্নাবান্না ও ঘর পরিপাটি করে তোলাও রয়েছে এই আয়োজনে। পুজোই অতিথির আগমন ঘটতে পারে যখন তখন। তাই ফিটফাট হওয়া চায় বসার ঘর। আজ রয়েছে তিন কৌশল যা আপনার বসার ঘরের চেহারা পাল্টে দেবে।

১) অতিথি আসলে প্রথমেই বসার ঘরেই সাধারণত বসে। তাই বসার ঘরের দেওয়ালের সাজ বিশেষ হওয়া চায়। কম খরচে দেওয়াল সাজাতে চেলে নকশা বিহীন একরঙা দেওয়ালই উপযুক্ত। আসবাবপত্র কম থাকলে সিম্পল দেওয়ালই মানানসই। ঘর ছোট হলে হাল্কা রং ই বেস্ট। সেক্ষেত্রে ঝুলন্ত সরন্জামাদী দিয়ে বাড়ি সাজানো যেতে পারে। এছাড়া নানা ধরনের কৃত্রিম আলো দিয়ে সাজাতে পারেন জানালা।

বসার ঘর মানেই আমরা সোফা দিয়ে সাজাই। তবে এ চিন্তা থেকে বেরিয়ে আসার সময় হয়েছে। এখন বসার ঘরকে আধুনিক ও নান্দনিক করে তুলতে অনেকেই ব্যবহার করছে সোফার বদলে বিন ব্যাগ কিংবা রঙিন গদি যা দেখতে বড় বালিশের মত। এতে করে ঘরে জায়গাও বাড়বে। তথাকথিত ভারী আসবাবপত্র সরিয়ে মেঝেতে নিত্যনতুন ডিজাইনের কার্পেট, জাজিম ও নানাধরণের কুশন দিয়ে বসার ঘর সাজালে দারূণ নতুনত্বের ছোঁয়া পাওয়া যায়। 

৩) দুর্গাপুজো হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের আত্মার উৎসব। এই উৎসবেই  আত্মপরিচয়ের বড় অংশই হোক প্যাশন। যিনি চিত্রশিল্পী, তিনি নিজের স্টুডিওর মত করে সাজাতে পারেন বসার ঘর। অনুরূপভাবে বই প্রেমীও বিভিন্নরকম বইয়ের বাহারী তাক দিয়ে বসার ঘর সাজিয়ে ফেলতে পারেন। তেমনি ভাবে কারও যদি বাগানের শখ থাকে সেক্ষেত্রে বসার ঘরেও মানানসই গাছ দিয়ে সেটআপ করতে পারেন। পুরোনো দিনের ঐতিহ্যবাহী কোন সামগ্রী বা দেওয়াল ঘড়ি ও ভাস্কর্য ঘরের সামগ্রিক চিত্রই বদলে দিতে পারে।

এস আর

সর্বশেষ

সর্বাধিক সবার কাছের